আজ বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন


বিজিপি সদস্যের বিরুদ্ধে স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ

টাঙ্গাইল কালিহাতি উপজেলার পালিমা গ্রামের মৃত অাব্দুল বাছেত মিয়ার মেয়ের সাথে একই উপজেলার করুয়া গ্রামের অাব্দুল কাদেরের ছেলে মোসারফ হোসেনের ৫ বছর অাগে ৭ লক্ষ টাকা ও ৫ ভরি স্বর্ণ কাবিনে বিয়ে হয়।বিয়ের পর মেয়ের বাবা মোসারফ কে বিজিপিতে ৭ লক্ষ টাকার বিনিময়ে চাকুরী নিয়ে দেন।   বিয়ের পর চাকুরী ও স্ত্রীকে নিয়ে ভালোই চলছিলো তাদের সংসার। হঠাৎ মোসারফ হোসেন জানান বিয়ের অাগে তিনি অন্য জায়গায় বিয়ের নামে ২ লক্ষ টাকা নেয় মোসারফ । সেই জায়গার জামেলায় মেয়ের বড় ভাই অামির হামযা ১ লক্ষ টাকা দেয় যাতে তার বোন ভালো থাকে।

এর মধ্যে কিছুদিন পর মেয়ের বাড়িতে খবর অাসে মোসারফ হোসেন তার স্ত্রীকে প্রতিনিয়ত অত্যাচার করে থাকে। সে কথা শোনার পর তার ভাই গিয়ে তাকে নিয়ে অাসে। তারপর মোসারফ হোসেন স্থানীয় মাতাব্বর নিয়ে গিয়ে তার স্ত্রীকে নিয়ে অাসে। মাঝে মাঝে মারধর করতো মোসারফ তার স্ত্রীকে।

গত ৫-০৭-২০১৯ তারিখে মোসারফ হোসেন তার স্ত্রীকে লাটি দিয়ে পিটিয়ে গরুর ঘরে রেখে দেয়। পরের দিন সকালে পাশের বাড়ির লোকজন মেয়ের বাড়িতে খবর দিলে মেয়ের মা,ভাই এসে তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এমতাবস্থায় মেয়ের বড় ভাই অামির হামযা বাদী হয়ে কালিহাতী থানায় ও টাঙ্গাইল কালিহাতী অামলী অাদালতে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

বর্তমানে গৃহবধূটি টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

কালিহাতী সংবাদদাতা

মোসারফ  হোসেন বর্তমানে রাঙ্গামাটি বিজিপি অফিসে কর্মরত অাছে।