আজ রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন


কনস্টেবল পদে নিয়োগপ্রাপ্ত নবীন নারী-পূরুষ সদস্যদের কে সদর মডেল থানা পুলিশের সংবর্ধনা প্রদান

নিজস্ব প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জে একশত টাকায় কনস্টেবল পদে নিয়োগপ্রাপ্ত নবীন নারী-পূরুষ সদস্যদের কে সংবর্ধনা প্রদান করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ।
সোমবার(৮জুলাই) দুপুরে সদর মডেল থানা পুলিশের আয়োজনে পুলিশের কনফারেন্স রুমে এ সংবর্ধনা প্রদান উপলক্ষে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ মোঃ সহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে ও এস আই প্রদীপের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জয়নাল আবেদীন।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সদর মডেল থানার বিদায়ী অফিসার ইনচার্জ মোঃ শহীদুল্লাহ,সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, ওসি অপারেশন মুর্শেদ আহমদ,এ ছারাও উপস্থিত ছিলেন এস আই মোঃ জালাল উদ্দিন,এস আই মোঃ মুহিত এস আই সোহেল রানা প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত কনস্টেবল পদে নিয়াগপ্রাপ্ত মোঃ আব্দুল আলীম পুলিশে নিয়োগের বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন,‘আমার পিতামাতা অন্যের বাড়িতে দিনমুজুরের কাজ করে অনেক কষ্টে সংসার চালাতেন। সে নিজেও অন্যের জমিতে দিনমুজুরের কাজ করে এস এস পাশ করে কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন। তার স্বপ্নঁ ছিল সে কোনদিন পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করে দেশের সেবায় আত্মনিয়োগ করবে।
তিনি আরও বলেন ছোটবেলা থেকে শোনে আসছিলেন পুলিশ বাহিনীতে ঢুকতে হলে প্রচুর টাকা নাকি ঘুষ দিতে হয় কিন্তু তিনি সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ খানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আরো বলেন, এই পুলিশ সুপারের কারণে তার মতো গরীব পরিবারের সন্তান হিসেবে সদ্য পুলিশের কনস্টেবল পদে মাত্র একশত টাকায় চাকুরী পেয়ে তিনি নিজেকে স্বাধীন বাংলার একজন গর্বিত সন্তান মনে করেন।
তিনি আরো বলেন যে ছোটবেলার তার শোনা কথাটি পুলিশে চাকুরী নিতে গেলে টাকা লাগে এটা আজ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে একমাত্র সৎ পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ খানের প্রচেষ্টায়। তিনি পরিশেষে সততা ও নিষ্ঠার সাথে পুলিশ বাহিনীতে চাকুরী করায় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জয়নাল আবেদীন বলেন,সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মোঃ বরকতুল্লাহ খাঁন(স্যারের) সততা ও আন্তরিকতার কারণেই সম্প্রতি এই জেলায় বিভিন্ন স্থরের অসহায় ও গরীব পরিবারের অনেক সন্তানরা বিনাটাকায় মাত্র একশত টাকায় তাদের যোগ্যতা ও মেধার ভিত্তিতে পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগ পেয়েছেন। এটা সুনামগঞ্জের ইতিহাসে একটি মাইলফলক ঘটনা। সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ খানের মতো সৎ ও নীতিবান পুলিশ অফিসার এই বাহিনীতে আছেন বলেই পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা এ দেশের মাটি ও মানুষের কল্যাণে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন।
তিনি উপস্থিত সকল নবাগত পুলিশ সদস্যদের দেশের অসহায় ও নিরীহ জনগনের পাশে থেকে সততার সাথে কাজ করে যাওয়ার পরামর্শ দেন। পরে পুলিশের উধর্বতন কর্মকর্তারা সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত সংবর্ধিত সকল কনস্টেবল সদস্যদের মিষ্টিমুখ করানো হয় এবং তাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়।