আজ শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৮:১২ অপরাহ্


বিদেশে বসেও বেপরোয়া চারঘাটের স্বার্থক

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,চারঘাট:

বিদেশে বসে আবারও বেপরোয়া চারঘাটের ইনজামামুল তাবারেজ স্বার্থক ও তার গ্যাং।কখনও বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যাক্তিদের নিয়ে কটুক্তি,কখনও মেয়েদের ছবি দিয়ে পর্ন ছবি বানিয়ে ফেসবুকে ছাড়া,আবার কখনও সাবেক বাগদত্তাকে হুমকি দিয়ে শিরোনাম হয়েছেন তিনি।এ সংক্রান্তে স্বার্থক ও তার বন্ধু শহীদের নামে চারঘাট মডেল থানায় পর্ণগ্রাফি আইনে একটি মামলাও হয়েছে।

ইনজামামুল তাবারেজ স্বার্থক চারঘাট উপজেলার মিয়াপুর গ্রামের মিজানুর তাবারেজের ছেলে।তিনি ২ বছর যাবৎ সৌদি আরবে কাজ করছেন।এর মাঝখানে কিছু দিনের ছুটিতে দেশে এসেছিলেন।সে সময় তিনি মাদকসহ আটক হয়েছিলেন।এ বিষয়ে একটি মাদক মামলাও চলমান রয়েছে।

জানা যায়, তিনি দেশে এসে উপজেলা বিএনপির নেতাদের সাথে বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হোন।এর মধ্যে পারিবারিক ভাবে সরদহ সরকারী কলেজের সহকারী গ্রন্থাগারিকের সাথে তার বিয়ে ঠিক হয়।কিন্তু পরবর্তীতে আগেও তার একটা বউ ছিল সেটা জানতে পেরে ঐ গ্রন্থাগারিক বিয়ে করতে অসম্মতি জানায়।এতে স্বার্থক ক্ষীপ্ত হয়ে উঠে এবং তাদের দুজনের কিছু ক্লোজ ছবি ইডিট করে পর্ন ছবি তৈরি করে সে এবং তার বন্ধুরা ফেসবুকে ছেড়ে দেয়।পরবর্তীতে ঐ গ্রন্থাগারিকের অভিযোগের ভিত্তিতে চারঘাট মডেল থানায় পর্নগ্রাফী আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

সরদহ সরকারী কলেজের ঐ সহকারী গ্রন্থাগারিক সাংবাদিকদের বলেন, স্বার্থককে বিয়ে না করাটাই আমার জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে।মামলা তুলে নিতে সে ও তার বন্ধু শহীদ প্রতিনিয়ত হুমকি ধামকি দিতেছে।রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে নিয়ে কটুক্তি করছে।তার পরিবারকে বলেও কোনো লাভ হয়নি।উল্টো সে বলে আমি বিদেশে আছি,তোর পুলিশ আমার কিছুই করতে পারবেনা।

গ্রন্থাগারিক আরো বলেন,তার সাথে আমার বিয়ের কথা হয়েছিল মাত্র,বিয়ে হয়নি।কিন্তু সে একটা ভুয়া বিয়ের কাগজ ম্যানেজ করে ফেসবুকে অপপ্রচার করছে।বিভিন্ন নামে আইডি খুলে আমার ছবি দিয়ে পর্ন ছবি বানিয়ে ফেসবুকে আপলোড করছে।পর্নগ্রাফী মামলার প্রধান আসামী হওয়ার পরেও সে একটুও থামেনি।আমার জীবনটা একেবারে অতিষ্ঠ করে দিয়েছে।এ বিষয়ে স্বার্থকের পরিবারও স্বার্থককে নিষেধ করেনা।তিনি সকলের কাছে এর একটি সুষ্ঠ প্রতিকার চেয়েছেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত স্বার্থকের বাবা মিজানুর তাবারেজ বলেন,আমার ছেলে একেবারে নির্দোষ।সে কোনো অন্যায় করেনি।তবে তার ছেলের মাদক ও পর্নগ্রাফী মামলার ব্যাপারে তিনি কোনো কিছু জানাতে পারেননি।

এ ব্যাপারে চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) সমিত কুমার কুন্ডু বলেন,তার নামে পর্নগ্রাফি মামলা হয়েছে।তারপরেও যদি সে নতুন নতুন আইডি খুলে অপপ্রচার চালায়,তবে তার নতুন অভিযোগ গুলোও আগের মামলার সাথে যোগ করা হবে।ফেসবুকে কটুক্তি কিংবা অপপ্রচার চালালে তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় নিয়ে আসবো আমরা।

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০