আজ বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন


সিনেমা দেখলে মিলবে ৫ হাজার টাকা

বাংলা সিনেমার অকাল চলছে। তার মধ্যে করোনা মহামারীর জন্যে আরো করুণ সিনেমার দশা। হল খুলেছে, নেই ভালো সিনেমা। ২৩ অক্টোবর ঢাকা ও চট্টগ্রামে মুক্তি পাবে আলোচিত সিনেমা ”ঊনপঞ্চাশ বাতাস’। স্টার সিনেফ্লেক্সে সিনেমাটি দেখলে পাওয়া যেতে পারে ৫ হাজার টাকার প্রাইজমানি উপহার।

সিনেমা দেখলে সিনেমার আরেক ভক্ত দিবে ৫ হাজার টাকা। কামরুল হাসান নামের একজন বাংলা সিনেমার নিয়মিত দর্শক ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’ চ্যালেঞ্জ দিয়ে ঘোষণা করেছেন স্টার সিনেফ্লেক্সের দর্শককে ব্যক্তিগত উদ্যোগে পাঁচ হাজার টাকা উপহার দিবেন। শত প্রতিকূলতার মধ্যেও ভালো ছবি দেখতে হলে যাওয়া দর্শকের জন্যে তার ব্যক্তিগত উদ্যোগ বলে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। কামরুল হাসানের স্ট্যাটাস অনুসারে তিনজন বিজয়ীকে দেয়া হবে পাঁচ হাজার টাকা।  প্রথম পুরস্কার ৩ হাজার টাকা, ২য় পুরস্কার ১৫’শ টাকা ও তৃতীয় পুরস্কার ৫’শ টাকা।

পুরস্কার পেতে দর্শকে যা করতে হবে:

১। যে কোনো স্টার সিনেপ্লেক্স বা সিলভার স্ক্রিণের লবিতে ঊনপঞ্চাশ বাতাসের পোস্টার ব্যাকগ্রাউণ্ডে রেখে হাতে টিকেট নিয়ে ছবি তুলে আপনার নিজস্ব ফেসবুক আইডি থেকে এই পোস্টের কমেন্টে সেই ছবি দিতে হবে।
২। ছবিতে আপনার চেহারা এবং ”টিকেটের নাম্বার, প্রদর্শনীর তারিখ ও শো-টাইম” স্পষ্ট থাকতে হবে। অস্পষ্ট, অপূ্র্ণাঙ্গ, এডিটেড, ফটোশপড টিকেট বাতিল হবে।
৩। ছবির সাথে কোন সিনেপ্লেক্সে ছবিটি দেখেছেন তা উল্লেখ করতে পারেন। এর বাইরে ছবির সাথে আর কিছু না লেখার অনুরোধ থাকল।
৩। ‘এক ব্যক্তি, এক টিকেট’ এই নীতি অনুসরণ করা হবে। একই টিকেটে দুই ব্যক্তি বা একই ব্যক্তি দুই টিকেট হলে সবগুলোই বাতিল গণ্য হবে।
৪। এই চ্যালেঞ্জ ২৩ অক্টোবর ২০২০ শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে ২৯ অক্টোবর ২০২০ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে।
৫। প্রতিটি ছবি প্রিন্ট করে লটারির মাধ্যমে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে এবং লটারি ফেসবুকে লাইভ প্রর্দশন হবে। ১ নভেম্বরের আগেই বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।
৬। প্রথম পুরস্কার = ৩০০০ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার = ১৫০০ টাকা, তৃতীয় পুরস্কার = ৫০০ টাকা। সর্বমোট ৫০০০ টাকা এ চ্যালেঞ্জের পুরস্কার বাবদ বরাদ্দ থাকবে।
৭। বিজয়ীর সাথে ফেসবুকে কন্ট্যাক্ট করে ফোন নাম্বার নিয়ে পুরস্কারের অর্থ বিকাশ করা হবে। আগে থেকেই কেউ ফোন নাম্বার কমেন্টের ছবি বা ইনবক্সে না দেয়ার অনুরোধ থাকল।
৮। ন্যুনতম ৫০০ এন্ট্রি না পাওয়া গেলে ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস চ্যালেঞ্জ’ বাতিল ঘোষণা করা হবে।

ব্যক্তিগত এমন উদ্যোগ দর্শককে হলমুখী করবে আশা করা যায়।